1. admin@dainikcoxsbazardiganto.com : Cox Bazar Dainik :
  2. newsiqbalcox@gmail.com : Md Iqbal : Md Iqbal
লাদাখের বিতর্কিত অঞ্চলটি ফের দখলে নিয়েছে চীন - Cox's Bazar Diganto
August 1, 2021, 4:42 am

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
১,২৪৯,৪৮৪
সুস্থ
১,০৭৮,২১২
মৃত্যু
২০,৬৮৫
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
স্পন্সর: একতা হোস্ট

লাদাখের বিতর্কিত অঞ্চলটি ফের দখলে নিয়েছে চীন

  • Update Time : Saturday, June 27, 2020
  • 423 Time View

অনলাইন ডেস্ক:

লাদাখের যে বিতর্কিত অঞ্চলটিকে ঘিরে প্রতিবেশী দুই দেশ চীন ও ভারতের মধ্যে চলমান সংঘাতের সূচনা, সেটি ফের দখলে নিয়েছে বেইজিং সরকার। সম্প্রতি লাদাখের ওই পেট্রোলিং পয়েন্ট (পিপি) এলাকাতেই দুই পক্ষের সেনাদের মধ্যে মল্লযুদ্ধে প্রাণ হারিয়েছিল ২০ ভারতীয় সেনা।

শনিবার এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম আনন্দবাজার।

প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, ফের ভারতের এলাকা দখল করে বসে পড়েছে চীন সেনারা। অবশ্য এ নিয়ে ‘ভয়াবহ পরিণতি ভোগ করতে হবে’ চীনকে সতর্ক করে দিয়েছে নয়াদিল্লি।

সেনা সূত্রের বরাত দিয়ে আনন্দবাজার জানাচ্ছে, পয়েন্ট ১৪-সহ গোটা এলাকায় চীনা সেনার উপস্থিতির কারণে পেট্রোলিং পয়েন্ট ১০, ১১, ১১এ, ১২ এবং ১৩তে যেতে পারছে না ভারতীয় সেনারা।

এদিকে শুক্রবার দিল্লিতে প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহের কাছে সীমান্ত পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করেছেন সেনাপ্রধান এম এম নরবণে। এ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠকে বসার কথা রয়েছে রাজনাথের।

এ সম্পর্কে চীনে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত বিক্রম মিস্রি বলেন, পূর্ব লাদাখে সমস্যা মেটানোর পথ একটাই। বেইজিংকে বুঝতে হবে সীমান্তে স্থিতিশীলতা নষ্ট করার চেষ্টা করা হলে তাদেরও এর ফল পেতে হবে। ভারতীয় বাহিনীর স্বাভাবিক টহলদারির আটকানোর চেষ্টা না করা হলেই কেবল দু দেশের সমস্যা মেটানোর সম্ভব।

সেনা সূত্রের বরাত দিয়ে আনন্দবাজার আরও জানাচ্ছে, এই মুহূর্তে লাদাখের বিস্তীর্ণ এলাকা দখলে নিয়েছে চীন; যার মধ্যে পড়েছে বটল-নেক পয়েন্ট বা ওয়াই জংশন পেট্রোলিং পয়েন্ট। এই ওয়াই জংশন পয়েন্ট থেকেই পিপি ১০, ১১, ১১এ, ১২ ও ১৩ যাওয়ার রাস্তা। কিন্তু চীনা সেনারা বসে থাকায় আপাতত সেই এলাকায় পৌঁছতে পারছে না ভারতীয় সেনা। এর ফলে কয়েকশো বর্গ কিলোমিটার এলাকায় নজরদারি বন্ধ রাখতে হয়েছে ভারতকে।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ জুন গালওয়ান উপত্যকায় পিপি-১৪-এ চীনা সেনা পরিকাঠামো তৈরির চেষ্টা করায় দুপক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ ঘটে। ওই সংঘর্ষে মোট ২০ ভারতীয় সেনা নিহত এবং আরও ৭৬ জন আহত হয়। ওই সংঘর্ষে বেশ কিছু চীনা সেনাও হতাহত হয়েছে বলে শোনা গেছে। যদিও তাদের নির্দিষ্ট সংখ্যা পাওয়া যায়নি। ওেই সংঘাতের পর বিতর্কিত এলাকাটি থেকে পিছু হটে চীনারা। কিন্তু ১০ দিনের মধ্যে ফের পেট্রোলিং পয়েন্ট ১৪-র কাছে ঘাঁটি গেড়েছে চীন সেনারা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

More News Of This Category
  • এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া  অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Theme Customized By Coxmultimedia
%d bloggers like this: