1. admin@dainikcoxsbazardiganto.com : Cox Bazar Dainik :
  2. newsiqbalcox@gmail.com : Md Iqbal : Md Iqbal
টেকনাফের আত্মসমর্পনকারী ১০২  পরিবারের সদস্যরা মামলা প্রত্যাহারের জন্য আইনী সহায়তা চায় - Cox's Bazar Diganto
August 1, 2021, 5:23 am

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস

সর্বমোট

আক্রান্ত
১,২৪৯,৪৮৪
সুস্থ
১,০৭৮,২১২
মৃত্যু
২০,৬৮৫
সূত্র: আইইডিসিআর

সর্বশেষ

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
স্পন্সর: একতা হোস্ট

টেকনাফের আত্মসমর্পনকারী ১০২  পরিবারের সদস্যরা মামলা প্রত্যাহারের জন্য আইনী সহায়তা চায়

  • Update Time : Friday, May 8, 2020
  • 440 Time View

সরোয়ার আজম মানিকঃ
করোনার সঙ্কট এবং পবিত্র রমজান মাসে টেকনাফে আত্মসমর্পণ করেছে ১০২ জন মাদক ব্যবসা পরিবারের ৫০০ শতাধিক পুরুষ ও মহিলা। দুটি মামলায় তারা গত ১৪ মাস ধরে কক্সবাজার কারাগারে অবস্থান করছে। চলমান করোনার সময় এবং পবিত্র রমজান মাসে তাদের ১০২ টি মামলার সমাধানের জন্য পরিবারের ১০২ জন সদস্য প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চেয়েছেন। ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, টেকনাফের ১০২ জন মাদক ব্যবসায়ী প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে টেকনাফের একটি অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পণ করেছিলেন। আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে পুলিশের তৎকালীন আইজিপিও উপস্থিত ছিলেন। কক্সবাজার জেলার ৪ জন সংসদ সদস্য, জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। আত্মসমর্পণের সময় তাদের আস্তানা থেকে ৩৫০,০০০ পিস ইয়াবা এবং ৩০ টি বাড়িতে তৈরি অস্ত্র এবং ৬০০ টি তাজা কার্তুজ উদ্ধার করা হয় এবং মাদক ও অস্ত্র আইনে পৃথক দুটি মামলায় আত্মসমর্পণকারীদের কারাগারে প্রেরণ করা হয়। এ প্রসঙ্গে, ২৭/ ও ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ দুটি পৃথক দুটি মামলা টেকনাফ থানায় দায়ের করা হয়েছে। জানা গেছে যে তারা ঘৃণার ওষুধের পেশা ছেড়ে দিয়ে সাধারণ জীবনে ফিরে আসার জন্য সুনির্দিষ্ট আইনী সহায়তা দেওয়ার সরকারের প্রতিশ্রুতির আলোকে তাদের জীবন বাঁচাতে আত্মসমর্পণ করেছিল।

জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা যে, ২৮ শে ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ টেকনাফে যারা মাদক ব্যবসা ছেড়ে দিয়েছে তাদের আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হবে তাদের পরিবারকে। এরপরে, কক্সবাজার জেলা পুলিশ যে আত্মসমর্পণ করেছিল তাদের আইনী সহায়তা দেওয়ার বিষয়ে বিবেচনা করার সুপারিশ করে ৩ মার্চ ২০১৯ তে আইজিপিকে একটি প্রতিবেদন প্রেরণ করা হয়েছিল। আত্মসমর্পণের সময় সরকার প্রদত্ত পড়হফরঃরড়হং শর্তের মধ্যে ৭ শর্তে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, “প্রত্যাহার / আইনী সহায়তা সরকারের অনুমতি সাপেক্ষে বিবেচিত হবে।” যারা ইতিমধ্যে আত্মসমর্পণ করেছে তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে তারা চলমান করোনার সংকট চলাকালীন পবিত্র রমজান মাসে তাদের মামলা প্রত্যাহারে প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং আইজিপির সহযোগিতা চেয়েছিলেন। তিনি সংশ্লিষ্ট বিভাগে পৃথক লিখিত আবেদন প্রেরণ করেছেন বলে জানা গেছে। এদিকে, করোনার মহামারী চলাকালীন কক্সবাজার কেন্দ্রীয় কারাগারে ৫০০ বন্দির পরিবর্তে প্রায় ৫ হাজার বন্দী রয়েছে। একদিকে, যে কোনও সময় করোনার আক্রমণ হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে, অন্যদিকে, গত ১৪ মাসে এবং সরকার তাদের মামলা প্রত্যাহারের চুক্তিতে সরকার কোন অগ্রগতি করতে পারেনি, এতে পাঁচ শতাধিক নারী-পুরুষ রয়েছেন আত্মসমর্পণের পরিবারগুলি চরম উদ্বেগের মধ্যে জীবন যাপন করছে। আত্মসমর্পণকারী ১০২ জনের মধ্যে কেবল রাসেলই কারাগারে মারা গিয়েছিলেন। পবিত্র রমজান মাসে যারা স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণ করেছেন তাদের পরিবারের সদস্যরা তাদের মামলা প্রত্যাহারে প্রধানমন্ত্রী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং আইজিপি এবং সরকারের সংশ্লিষ্ট মহলগুলির কাছ থেকে মানবিক সহায়তা চেয়েছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

More News Of This Category
  • এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া  অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Theme Customized By Coxmultimedia
%d bloggers like this: